Breaking News
মেয়েদের মন জয় করার উক্তি

20 টি সহজ উপায়ে মেয়েদের মন জয় করার উক্তি

এবারের আলোচনার বিষয়বস্তু সহজ উপায়ে মেয়েদের মন জয় করার উক্তি নিয়ে। যেকোনো মেয়ের মন জয় করার জন্য প্রয়োজন কিছু বিশেষ গুণ অথবা নিজের ভালো দিক। যার মাধ্যমে একটি মেয়ের মন খুব সহজেই জয় করা যায়। তবে কিছু টিপস অনুসরণ করে খুব সহজেই মেয়েদের মন জয় করা যায়। তাই মেয়েদের মন জয় করার উক্তি সম্পর্কে আলোচনা করা হলো। যার মাধ্যমে খুব সহজেই মেয়েদের মন জয় করা সম্ভব হয়-

মেয়েদের মন জয় করার উক্তি

মেয়েদের মন জয় করার উক্তি ১:
ভালো লাগার মানুষটিকে কখনোই শুরুতে আপনার মনের কথাটি বলবেন না। নয়তো আপনাকে অবহেলা করার সম্ভাবনা বেশি হয়ে যাবে। তাই প্রথমে ধীরে ধীরে তার সাথে পরিচিত হওয়ার চেষ্টা করুন।

মেয়েদের মন জয় করার উক্তি ২:
সবারই বিপরীতমুখী আকর্ষণ রয়েছে। মেয়েরাও সেটার ব্যাতিক্রম নয়। তাই প্রথম প্রথম ভালো লাগার মানুষটির সাথে পরিচিত হওয়ার পর এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করুন। তাহলে সে আরো অগ্রসর হতে থাকবে।

মেয়েদের মন জয় করার উক্তি ৩:
কখনোই আপনার ভালো লাগার মানুষটি সম্পর্কে খারাপ কিছু বলবেন না।

মেয়েদের মন জয় করার উক্তি ৪:
যতটা সম্ভব সেই পছন্দের মানুষটির প্রশংসা করবেন। তাহলে মন পেতে সুবিধা হবে। কেননা মেয়েরা প্রশংসা শুনতে বেশি পছন্দ করে।

মেয়েদের মন জয় করার উক্তি ৫:
আপনার পছন্দের মানুষটিকে বিভিন্ন মাধ্যমে বুঝানোর চেষ্টা করুন, যে উনাকে আপনি পছন্দ করেন। তবে শুরতে কখনোই সরাসরি ভালো লাগার কথাটি প্রকাশ করবেন না। এমনকি উনি কি কি পছন্দ করে এবং কি কি অপছন্দ করে তা বিস্তারিত কথার মাধ্যমে জেনে নিন।

মেয়েদের মন জয় করার উক্তি ৬:
আপনার ভালো লাগার মানুষটি যেগুলো পছন্দ করে, সেগুলো করার চেষ্টা করুন। এতে করে সে অনেক খুশি হবে।

মেয়েদের মন জয় করার উক্তি ৭:
পরিচ্ছন্ন-গোছগাছ কেবল উচ্চতাই নিজেকে উপস্থাপন করার গুরুত্বপূর্ণ ফ্যাক্ট না। মূল বিষয় হচ্ছে নারী লক্ষ করে কোন পুরুষ নিজের বিষয়ে কতোটা সচেতন। পুরুষকে যথার্থ সতর্ক থাকতে হবে প্রথম দেখায়। হতে হবে নিজের প্রতি যত্নশীল, মনে রাখবেন এলোমেলো চুল, নোংরা নখ, দুর্গন্ধযুক্ত মোজা, কালি ছাড়া জুতা, শার্ট বা জিন্সে দাগ এমন যে কোন বিষয় হতে পারে অপছন্দ করার অন্যতম কারণ।

মেয়েদের মন জয় করার উক্তি ৮:
পোষাক জ্ঞান খুব দামী কাপড় পরে নারীর সামনে যেতে হবে এমন কোনো কথা নেই। তবে, পোশাকটি অবশ্যই ফ্যাশনেবল এবং আধুনিক ডিজাইনের হতে হবে। সেই সঙ্গে লক্ষ রাখতে হবে, যেন পোশাকে সাবলিল থাক যায় ।যাতে করে ব্যক্তিত্বের প্রকাশ ঘটে। ব্যাক্তিত্ব জ্ঞান নারীর গুরুত্বপূর্ণ বৈশিষ্ট্য হল যে তারা পুরুষের বিচারবুদ্ধি সম্পন্ন রসবোধের বিষয়টি উপভোগ করে। কিন্তু মজা করতে গিয়ে এমন কিছু বলা বা করা যাবে না যা অন্যকে উপহাস করে বা ভদ্রতার সীমা অতিক্রম করে। দায়িত্ববোধ মেয়েরা দায়িত্ববান পুরুষ পছন্দ করে।

মেয়েদের মন জয় করার উক্তি ৯:
ছোট ছোট বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে। যেমন-পুরুষের দায়িত্ব হচ্ছে নারী সঙ্গীটিকে নিরাপদে রাস্তা পার হতে সাহায্য করা। কখনোই তাকে পেছনে ফেলে নিজে এগিয়ে না যাওয়া। বেড়াতে যাওয়া বা খাবার এমন বিষয়ে তার পছন্দের প্রতি সন্মান প্রদর্শন করা ,গুরুত্ব দেয়া। মনে রাখতে হবে নারীরা গুরুত্ব পেতে ভালোবাসে। তারা সবসময় পুরুষ সঙ্গিটিকে নিজের সর্বোত্তম আশ্রয় ও প্রাপ্তির নিশ্চিত সীমান মনে করে। মেয়েরা তার পুরুষ সঙ্গীর দায়িত্ববোধ নিয়ে সহপাঠী,সমবয়সী ও আত্মীয়দের মাঝে গর্ব করতে ভালবাসে।

মেয়েদের মন জয় করার উক্তি ১০:
প্রশংসা নারী সঙ্গীর প্রতি মুগ্ধতা দেখাতে হবে। বাইরে যাওয়ার সময় তার সাজের প্রশংসা করতে হবে। নারী সঙ্গীর দেয়া উপহার সানন্দে গ্রহণ করতে হবে। তার রান্নার প্রশংসা করুন। কখনো যদি পছন্দ মতো নাও হয়, কোনো ভাবেই বিরক্তি প্রকাশ করা যাবে না। মনে রাখতে অনেক আন্তরিকতা নিয়ে কষ্ট করে শুধু পুরুষ সঙ্গীকে খুশি করার জন্যই মেয়েরা ব্যাস্ত থাকে। তার সাথে দেখা হলে প্রথমেই মিষ্টি হাসি ধরে রাখতে হবে।

মেয়েদের মন জয় করার উক্তি ১১:
শান্ত স্বভাব অনেক পুরুষের বৈশিষ্ট হচ্ছে তারা খুব অল্পতেই ক্ষিপ্ত হয়ে যায়। কিন্তু খুব সহজেই আবার রাগ কমে যায়। পুরুষের কাজ হবে, কিছুটা সময় শান্ত থেকে পরিস্থিতি স্বাভাবিক এবং শান্তিপূর্ণ রাখা।

মেয়েদের মন জয় করার উক্তি ১২:
নারীরাও আজকাল রাগী, আক্রমণাত্বক সঙ্গী পছন্দ করে না। রাগ করার মতো সুনির্দিষ্ট কারণ থাকলে নারী সঙ্গীকে শান্তভাবে বুঝিয়ে বলতে হবে। সম্মান প্রদর্শন নারীকে সম্মান করতে হবে। অনেকের মাঝে নারীকে হেয় করে কথা বলার প্রবণতা দেখা যায়। তবে নারীও মানুষ সে পুরুষের সমান গুরুত্ব এবং সম্মান পাওয়ার অধীকার রাখে।

মেয়েদের মন জয় করার উক্তি ১৩:
প্রিয় মানুষটিকে যে কথা দিবেন সে কথা সময়মতো পালন করবেন। কথা বলার জন্য যে সময় দিবেন সে সময়ই হাজির হয়ে যাবেন।

মেয়েদের মন জয় করার উক্তি ১৪:
আপনার সঙ্গীর মনযোগের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠবেন আপনি তার চোখেই চোখ রেখে কথা বলুন, কিছুক্ষণের জন্য তার সমস্ত মনযোগের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠবেন আপনি। তিনি চান কিংবা না চান, আপনার কথা তাঁকে শুনতেই হবে গুরুত্ব সহকারে।

মেয়েদের মন জয় করার উক্তি ১৫:
আপনি কি ভাই খুব ফিটফাট গোছালো? প্রথমেই মাইনাছ! কিছুটা অগোছালো, এলোমেলো ছেলেই নাকি সুন্দরী মেয়েদের বেশি পছন্দ! তবে সাবধান! উদ্ধত্যপূর্ণ কিংবা ছেঁড়া-ফাঁড়া পোশাক বাদ দিন। ভালো পারফিউম ব্যবহার করুন। তাহলে আপনার সঙ্গীর মন পেতে পারেন।

মেয়েদের মন জয় করার উক্তি ১৬:
চোখই আপনাকে বলে দেবে হাসিটা স না মিথ্যা মুখে তো সকলেই হাসেন, কিন্তু সেই আন্তরিক কিনা কীভাবে বুঝবেন? আন্তরিক হাসিতে ঝলমল করে ওঠে মানুষের চোখ, যা কৃত্রিম হাসিতে হয় না। একটু লক্ষ্য করুন, নিজেই বুঝতে পারবেন।

মেয়েদের মন জয় করার উক্তি ১৭:
চোখের মনি জানিয়ে দেয় মানুষটি আগ্রহী কিনা অনেক কথা বলছেন আপনি, কিন্তু সামনের মানুষটি আগ্রহ নিয়ে শুনছে কিনা কীভাবে বুঝব আগ্রহ নিয়ে কিছু শুনলে বা দেখলে মানুষের চোখের মনি স্বাভাবিকের চাইতে বড় দেখায়। এটাও একটু লক্ষ্য করলেই জানা যায়।

মেয়েদের মন জয় করার উক্তি ১৮:
চোখে চোখে কথা বলা ভালো লক্ষণ পরস্পরের চোখের ভাষা বুঝতে পারা, চোখের ইঙ্গিত ধরে নেয়ার ক্ষমতাটি আসলে ভালোবাসার লক্ষণ। দুটি মানুষ যখন পরস্পরকে গভীরভাবে ভালোবাস তখন তাঁরা সেটা পারেন।

মেয়েদের মন জয় করার উক্তি ১৯:
চোখ জানিয়ে দেয় প্রতারণার কথা বেশিরভাগ মানুষই মনে করেন যে মিথ্যুকেরা চোখে চোখ রেখে কথা বলে না। কিন্তু এই ধারণা কিন্তু অনেকটাই ভুল। মারাত্মক ধরণের মিথ্যুকেরা চোখে চোখ রেখেই কথা বলে, শান্ত ও স্থির দৃষ্টিতে। বরং মিথ্যুকেরা প্রয়োজনের চাইতে বেশি চোখাচোখি করে কাউকে খুব বেশি চোখাচোখি করে কথা বল থাকুন যে আপনার কাছে সে মিথ্যাকে সত্য প্রমাণ করতে চাইছে।

মেয়েদের মন জয় করার উক্তি ২০:
মেয়েরা হ্যাপি নিউ ইয়ার, জন্মদিন, ভ্যালেনটাইন ডে ইত্যাদি এইসব দিনে একটু বেশি আবেগি থাকে তাই এই সব দিনে যদি একটা উপহার আপনার প্রিয় জন কে দিতে পারেন তাহলে তাহলে আপনার সম্পর্ক আরো ভাল হবে। কিন্তু মনে রাখবেন বেশি আবেগ দেখাতে গিয়ে ধরা খাইয়েন না। তাই বলে অকারণে বার বার উপহার দিবেন না।

About admin

Check Also

হাঁটার উপকারিতা

হাঁটার উপকারিতা কখন বেশি? সকাল নাকি রাত?

আমরা বিভিন্ন প্রয়োজনের তাগিদে কম-বেশি হাঁটাহাঁটি করে থাকি। অনেকে আবার অল্প রাস্তা হলেও হাঁটতে চান …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *