Breaking News
বাংলাদেশ

ডু ওর ডাই ম্যাচে কেমন হবে বাংলাদেশ একাদশ?

শ্রীলঙ্কা আর বাংলাদেশ এর ম্যাচ। ডু ওর ডাই সিচুয়েশন। ম্যাচ নিয়ে জল্পনা কল্পনার অভাব নেই কারোই। এবারের এশিয়াকাপে দু দলেই হেরেছে এক ম্যাচ করে।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে হারের পর বেশ পরিবর্তনের হাওয়া বইবে সেটা বলাই যায় কিন্তু পরিবর্তন হবে কোথায়?

বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কা

প্রথমে বলে নিই গত ম্যাচ বিবেচনায় এই ম্যাচে টিকে যাবেন কারা কারা।
সাকিব আল হাসান
আফিফ হোসাইন ধ্রুব
মোসাদ্দেক সৈকত

কি অবাক হচ্ছেন? বাংলাদেশের সিচুয়েশনই এমন এখন। তাও আবেগের বসে আমরা আজও কয়েকটা অটোচয়েজ রাখছি। অটোচয়েজগুলো হলো,

১.
২.
৩. সাকিব আল হাসান
৪. মুশফিকুর রহিম
৫.আফিফ হোসাইন ধ্রুব
৬.
৭.
৮. মোসাদ্দেক সৈকত
৯.
১০.
১১.

অটোচয়েজ নিয়ে আগে আলোচনা করা যাক। সাকিব আফিফ দুজন ক্যাপ্টেন ও তার সহকারী সো তারা তো থাকছেনই। মুশফিককে দলে রাখা হবে হয়তো সাকিবের ভরসার জায়গা ও ভালো কিপিং সাপোর্ট পেতে। আর মোসাদ্দেক সৈকতকে তো দলে রাখতেই হবে কেননা লাস্ট ম্যাচে তার অলরাউন্ডিং পার্ফমেন্স।

এবারে আলোচনা ওপেনিং নিয়ে। আচ্ছা একটা প্রশ্ন আপনাদের কাছে। তামিমের রিপ্লেসমেন্ট কি আমরা পেয়েছি? কমেন্টে জানান। ওপেনিং ও প্রথম ম্যাচে দুই প্রফেশনাল ওপেনারকে খেলানো হয়েছিল যার মধ্যে দুইজনই ব্যর্থ। তবে কি এই দুই ওপেনারকে ড্রপ করবে বাংলাদেশ? একবার মনে হচ্ছে হ্যাঁ আবার না। হ্যাঁ মনে হওয়ার কারণ বাংলাদেশের স্কোয়াড এখন এক্সট্রা ২ ওপেনার নেই। আছেন মাত্র ১ ওপেনার। পারভেজ ইমন। হুট করে ইমনকে দলে এনে অন্য পজিশনের ব্যাটসম্যানের সাথে ওপেনিং করানোর রিস্ক কি নিবে বিসিবি? এই গোলকধাঁধার মধ্য থেকে ৪ টি ওপেনিং ঝুটি আমি বের করেছি ম্যাচের জন্য।
১/ ইমন ও নাইম
২/ ইমন ও বিজয়
৩/ ইমন ও সাব্বির
৪/ নাইম বিজয়।

পড়ুন → বাংলাদেশের একাদশে কে কে থাকবেন?

এই চার ঝুটির মধ্যে যেকোনো একটিকে দেখলেও আমি অবাক হবো না এই সিচুয়েশনে দাঁড়িয়ে।

৩,৪,৫ আছেন। ৬ এ মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ গত ম্যাচের পারফর্মেন্স মোটেও ভালো ছিলো না৷ তবুও কেনো জানি মনে হচ্ছে এই ম্যাচেও সুযোগ পেয়ে যাবেন রিয়াদ। কারণ সাকিব টুর্নামেন্ট শুরুর আগেই ক্লিয়ার করে দিয়েছেন।

৭ এ সাইফুদ্দিনের বিকল্প ভাবতেই হচ্ছে এবার। যদি সাব্বিরকে দিয়ে ওপেনিং না করানো হয় তবে এই জায়গায় সাব্বিরকে সুযোগ দেওয়াই যায়। আর সাব্বিরকে না খেলালে শেখ মাহেদীকে সুযোগ দিলে ভালো হবে।

৮ মোসাদ্দেক সৈকত। ৯ এ নাসুম আহমেদকে নেওয়া খুবই দরকার বলে আমি মনে করি। গত ম্যাচে একটা স্পিন অপশন কম ছিলো আমাদের সেটা পূরনের জন্য হলেও নাসুমকে দলে আনা প্রয়োজন।

১০ এ এবাদত হোসেনকে দেখছি আমি। আজ হয়তো এবাদতের টি-টোয়েন্টি অভিষেকও হতে পারে।

১১ প্রেডিক্ট করতে একরকম দিশেহারা আমি। সব কিছু বাদ দিয়ে এই ম্যাচেও আমি মুস্তাফিজকেই চাই। কেনোনা অভিজ্ঞতা। এই অভিজ্ঞতার বিচারে মুস্তাফিজ এই ম্যাচেও চান্স করে নিবেন বলে আমার মনে হয় যদিও উনি লাস্ট ম্যাচ ডুবিয়েছিলেন।

তাহলে দল কেমন দাড়ালো,
১. ইমন
২. সাব্বির
৩. সাকিব
৪. মুশফিক
৫. আফিফ
৬. রিয়াদ
৭. শেখ মাহেদী
৮. মোসাদ্দেক
৯. নাসুম
১০. এবাদত
১১. মুস্তাফিজ

লিখেছেন,
অসীম দেব
কন্টেন্ট ক্রিয়েটর।
স্পোর্টস রাইটার, স্টাডিআওয়ার।

About admin

Check Also

এশিয়া কাপ

কে জিতবে এশিয়া কাপ? (শ্রীলঙ্কা না পাকিস্তান)

এশিয়া কাপ ফাইনালের আগে ফাইনালের দুই প্রতিদ্বন্দ্বীর শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তানের একটি ম্যাচ আমরা দেখতে পেলাম। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *