Breaking News
সুস্থ জীবনের জন্য খাদ্য

(বিজ্ঞান) ৫ম: সুস্থ জীবনের জন্য খাদ্য অধ্যায়ের রচনামূলক প্রশ্নোত্তর

সুস্থ জীবনের জন্য খাদ্য হচ্ছে ৫ম শ্রেণীর প্রাথমিক বিজ্ঞান বই এর ৬ষ্ঠ অধ্যায়। সুস্থ জীবনের জন্য খাদ্য অধ্যায় থেকে বাছাইকৃত সেরা রচনামূলক প্রশ্নের উত্তর সম্পর্কে আলোচনা করা হলো-

সুস্থ জীবনের জন্য খাদ্য

প্রশ্ন-১. দুইটি শর্করা জাতীয় খাদ্যের নাম লেখো। খাদ্য সংরক্ষণের চারটি সুবিধা লেখো।
উত্তর:
দুইটি শর্করা জাতীয় খাদ্যের নাম হলো-
i. খাদ্য শস্য, ii. আলু।
খাদ্য সংরক্ষণের পাঁচটি সুবিধা হলো-
i. খাদ্যদ্রব্যকে পচন থেকে রক্ষা করে টাটকা ও তাজা রাখে।
ii. বছরের সবসময় সব রকম খাদ্যদ্রব্য পাওয়া যায়।
iii. ভবিষ্যতের খাদ্য চাহিদা পূরণ করা যায়।
iv. খাদ্যের অপচয় রোধ করা যায়।

প্রশ্ন-২. দুইটি আমিষ জাতীয় খাবারের নাম লেখো। সুষম খাদ্য গ্রহণ করা প্রয়োজন কেন?
উত্তর:
দুইটি আমিষ জাতীয় খাবার হলো-
মাছ ও মাংস।
সুষম খাদ্যে খাদ্যের প্রয়োজনীয় সকল প্রকার পুষ্টি উপাদান পরিমাণমতো থাকে। কর্মক্ষম থাকার জন্য আমাদের সঠিক পরিমাণ পুষ্টি উপাদান প্রয়োজন। প্রয়োজনীয় পুষ্টি গ্রহণ না করলে শরীর দুর্বল হয়ে পড়ে ও সহজে রোগে আক্রান্ত হয়। তাই আমাদের বয়স ও কাজের ধরন অনুযায়ী সঠিক পরিমাণে সুষম খাদ্য গ্রহণ করা প্রয়োজন।

প্রশ্ন-৩. সুষম খাদ্য কাকে বলে? সুষম খাদ্য গ্রহণের দুইটি প্রয়োজনীয়তা লেখো। শিশুর প্রয়োজনীয় পুষ্টিকর খাবার না খাওয়ার দুইটি ক্ষতিকর দিক লেখো।
উত্তর:
যেসব খাদ্যে দেহের চাহিদা মেটানোর জন্য প্রয়োজনীয় ছয়টি উপাদানই পরিমাণমতো থাকে তাদেরকে সুষম খাদ্য বলে। সুষম খাদ্য গ্রহণের দুইটি প্রয়োজনীয়তা হলো-
i. সুস্থ ও সবল থাকার জন্য।
ii. শরীরের কর্মক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য।
শিশুর প্রয়োজনীয় পুষ্টিকর খাবার না খাওয়ার দুইটি ক্ষতিকর দিক হলো-
i. শিশুর স্বাভাবিক বৃদ্ধি বাধাগ্রস্ত হবে।
ii. শিশুটি সহজে রোগে আক্রান্ত হবে।

প্রশ্ন-৪. বয়স ও কাজ অনুযায়ী পরিমিত খাদ্য গ্রহণের তিনটি গুরুত্ব লেখো। প্রয়োজনের তুলনায় কম খাওয়ার দুইটি ক্ষতিকর দিক লেখো।
উত্তর:
বয়স ও কাজ অনুযায়ী পরিমিত খাদ্য গ্রহণের তিনটি গুরুত্ব হচ্ছে-
i. সুস্থ ও সবল থাকার জন্য পরিমিত খাদ্য দেহে পুষ্টি উপাদান যোগায়।
ii. পরিমিত খাদ্য গ্রহণে শরীরের কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।
iii. শরীর সহজেই রোগে আক্রান্ত হয় না।
প্রয়োজনের তুলনায় কম খাওয়ার দুইটি ক্ষতিকর দিক হচ্ছে-
i. সহজেই রোগে আক্রান্ত হয়।
ii. শরীরের কর্মক্ষমতা হ্রাস পায়।

প্রশ্ন-৫. ফ্রিলে খাদ্য সংরক্ষণের তিনটি সুবিধা লেখো। জাঙ্ক ফুড পরিহারের দুইটি কারণ লেখো।
উত্তর:
ফ্রিজে খাদ্য সংরক্ষণের ফলে-
i. খাবারের অপচয় হয়।
ii. দ্রুত পচন থেকে খাদ্যকে রক্ষা করা যায়।
iii. খাদ্য বছরের বিভিন্ন সময় বাজারে সরবরাহ করা যায়।
জাঙ্ক ফুড পরিহারের দুইটি কারণ হলো-
i. এ খাবার খেলে পুষ্টিহীনতা দেখা দেয়।
ii. এ খাবার খেলে শরীরে অতিরিক্ত ওজন বৃদ্ধি পায়।

পড়ুন → পরিবেশ দূষণ অধ্যায়ের রচনামূলক প্রশ্নোত্তর
পড়ুন → জীবনের জন্য পানি অধ্যায়ের রচনামূলক প্রশ্নোত্তর

প্রশ্ন-৬. দুইটি জাঙ্ক ফুডের নাম লেখো। জাঙ্ক ফুড স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর- এ সম্পর্কে চারটি বাক্য লেখো।
উত্তর:
দুইটি জাঙ্ক ফুডের নাম—
i. বার্গার,
ii. ফ্রাইড চিকেন।
জাঙ্কফুড স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর -এ সম্পর্কে চারটি বাক্য নিচে লেখা হলো-
i. জাঙ্ক ফুড সুস্বাদু হলেও সুষম খাদ্য নয়।
ii. এতে অত্যধিক চিনি, লবণ ও চর্বি থাকে যা আমাদের শরীরে খুব সামান্যই দরকার হয়।
iii. সাধারণ খাবারের বদলে জাঙ্ক ফুড খেলে পুষ্টিহীনতা দেখা দেয়।
iv. এটি খেলে অতিরিক্ত ওজন বৃদ্ধি পেয়ে মোটা হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা দেখা দেয়।

প্রশ্ন-৭. কৃত্রিম রং মেশানো হয় এমন দুইটি খাবারের নাম লেখো। কৃত্রিম রং মেশানো খাবার খাওয়ার চারটি ক্ষতিকর দিক লেখো।
উত্তর:
কৃত্রিম রং মেশানো হয় এমন দুইটি খাবার হলো-
i. চকলেট, ii. আইসক্রিম।
কৃত্রিম রং মেশানো খাবার খাওয়ার চারটি ক্ষতিকর দিক হলো-
i. কৃত্রিম রং মেশানো খাবার খেলে মানুষের ক্যান্সার রোগ হয়।
ii. অমনোযোগিতা সৃষ্টি হয়।
iii. অস্থিরতা দেখা দেয়।
iv. বৃক্ক ও যকৃৎ অকার্যকর হয়ে যেতে পারে।

প্রশ্ন-৮. খাবারে মেশানো হয় এমন দুইটি ক্ষতিকর রাসায়নিক পদার্থের নাম লেখো। নিয়মিত প্রয়োজনীয় খাবার গ্রহণ না করার ফলে সৃষ্ট চারটি সমস্যা লেখো।
উত্তর:
খাবারে মেশানো দুইটি ক্ষতিকর রাসায়নিক পদার্থ হলো-
i. ফরমালিন এবং ii. কাৰ্বাইড।
নিয়মিত প্রয়োজনীয় খাবার গ্রহণ না করার ফলে সৃষ্ট চারটি সমস্যা হলো-
i. শরীর দুর্বল হয়ে পড়বে;
ii. সহজেই রোগাক্রান্ত হবে;
iii. স্বাভাবিক বৃদ্ধি ও বিকাশ বাধাগ্রস্ত হবে;
iv. শরীরের কর্মক্ষমতা হ্রাস পাবে।

প্রশ্ন-৯. তিনটি জাঙ্কফুডের নাম লেখো। রাসায়নিক ব্যবহার করে পাকানো ফল খেলে কী হতে পারে এ সম্পর্কে তিনটি বাক্য লেখো।
উত্তর:
তিনটি জাঙ্কফুডের নাম নিচে দেওয়া হলো-
i. পিজা; i. পটেটো চিপস; iii. কোমল পানীয়।
রাসায়নিক ব্যবহার করে পাকানো ফল খেলে কী হতে পারে সে সম্পর্কে তিনটি বাক্য নিচে দেওয়া হলো-
i. বৃক্ক অকার্যকর হয়ে যেতে পারে।
ii. যকৃৎ অকার্যকর হয়ে যেতে পারে।
iii. ক্যান্সারের মতো রোগ হতে পারে।

About admin

Check Also

জীবনের জন্য পানি

(বিজ্ঞান) ৫ম: জীবনের জন্য পানি অধ্যায়ের রচনামূলক প্রশ্নোত্তর

জীবনের জন্য পানি হচ্ছে ৫ম শ্রেণীর প্রাথমিক বিজ্ঞান বই এর ৩য় অধ্যায়। জীবনের জন্য পানি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *